শিরোনাম:
রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে আরও ১৮ জনের মৃত্যু এবার রাবির নতুন উপ-উপাচার্যকে ঘিরে বিতর্ক রাবির নতুন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম টিপু রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বিতর্কিত ভূমিকার কাউকে ভিসি, প্রো-ভিসি নিয়োগ কেউই মেনে নেবে না’ ইতিহাসবিদ এ বি এম হোসেন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবস্তম্ভ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে উপাচার্যের নির্বাহী আদেশ অমান্যসহ তথ্য গোপনের অভিযোগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী অফিসারদের উপস্থিতি চোখে পড়ে ‘হ্যাটস অফ টু ইউ স্যার’
১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

করোনাকালে ত্রাণ পেতে ৩৩৩ নম্বরে ফোন বাড়ছে

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জাকির হোসেনের কাছে গত কয়েক দিনে ২৯ জন মানুষ সহায়তা চেয়েছেন। তাঁরা ‘৩৩৩’ নম্বরে ফোন করে এই সহায়তা চেয়েছেন। জাকির হোসেন জানালেন, এর মধ্যে ১৬ জনকে সহায়তা দিয়েছেন তাঁরা। সহায়তা পাওয়া এসব মানুষের মধ্যে অনেকের অবস্থা বেশ সঙিন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন এক সেলুনকর্মী, দোকানকর্মী এক নারী। কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাঁরা বেকার হয়ে পড়েছিলেন।

আবার ফোন পেয়ে সহায়তা দেওয়া যায়নি এমন পরিবারও আছে। যাঁদের ঠিকানায় গিয়ে পাকা বাড়ি পাওয়া গেছে। জানা গেছে তাঁরা সচ্ছল। এমন ছয়টি পরিবারকে সহায়তা দেওয়া হয়নি বলে জানালেন ঈশ্বরগঞ্জের ইউএনও। বাকি কয়েকজনের ফোন নম্বর বন্ধ পাওয়া গেছে। সহায়তা হিসেবে চাল, ডাল, তেল,আলু, চিনি, সেমাই ও সাবান দিচ্ছেন তাঁরা।

শুধু  ঈশ্বরগঞ্জ নয়, এখন সারা দেশে অসংখ্য মানুষ সরকারের জরুরি হটলাইন ‘৩৩৩’ নম্বরে ফোন করে ত্রাণসহায়তা চাইছেন। তাঁদের সাধ্যমতো সহায়তা দিচ্ছে স্থানীয় প্রশাসন। তবে সবাই এখনো পাননি। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর এবং এটুআই কর্মসূচি সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ এপ্রিল থেকে ৪ মে পর্যন্ত ত্রাণসহায়তার জন্য ৮ লাখ ৭ হাজার ৮১৯টি ফোনকল আসে ‘৩৩৩’ নম্বরে। এর মধ্যে ৪ মে এক দিনেই ফোন আসে ১ লাখ ১৮ হাজার ৫৪৭টি। এসব ফোনের মধ্যে অপ্রয়োজনীয় ও ভুল ফোনও রয়েছে। এগুলো যাচাই-বাছাই করে ৩৯ হাজার ৭৫০ জনকে প্রাথমিকভাবে সহায়তার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের কাছে দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে মোট সহায়তা দেওয়া হয়েছে ১৮ হাজার ৫০০ জনকে।

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে চলমান বিধিনিষেধে দরিদ্র ও কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষদের সহায়তা দিতে জরুরি হটলাইন ‘৩৩৩’ (সরকারি তথ্য ও সেবা) নম্বরটি কাজে লাগাচ্ছে সরকার। সরকারের এটুআই কর্মসূচির অধীনে চলা এই হটলাইনের মাধ্যমে দুর্যোগ ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় স্থানীয় প্রশাসনকে দিয়ে এসব সহায়তা দিচ্ছে। এই হটলাইন আগে থেকে চললেও খাদ্যসহায়তার বিষয়টি মাঝে বন্ধ ছিল। গত ২৫ এপ্রিল থেকে খাদ্যসহায়তা দেওয়ার সেবাটি আবারও সচল করা হয়।

গত ২৫ এপ্রিল দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মো. এনামুর রহমান বলেছিলেন, ‘আমরা ৩৩৩ নম্বরটি প্রচার করেছি। কেউ খাদ্যকষ্টে থাকলে ফোন করলে তাঁকে তালিকাভুক্ত করে খাদ্যসহায়তা দেওয়া হবে।’

admin

Read Previous

সম্রাটসহ অন্যদের বিরুদ্ধে করা ২০ মামলার তদন্ত শেষ হচ্ছে না

Read Next

দেশে এবার ২০ হাজার পরিযায়ী পাখি কম এসেছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *