শিরোনাম:
রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে আরও ১৮ জনের মৃত্যু এবার রাবির নতুন উপ-উপাচার্যকে ঘিরে বিতর্ক রাবির নতুন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম টিপু রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বিতর্কিত ভূমিকার কাউকে ভিসি, প্রো-ভিসি নিয়োগ কেউই মেনে নেবে না’ ইতিহাসবিদ এ বি এম হোসেন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবস্তম্ভ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে উপাচার্যের নির্বাহী আদেশ অমান্যসহ তথ্য গোপনের অভিযোগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী অফিসারদের উপস্থিতি চোখে পড়ে ‘হ্যাটস অফ টু ইউ স্যার’
১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

প্রকাশিত প্রতিবেদনের ব্যাখ্যা

নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ৩৩৮টি ঘর বরাদ্দ হয়েছে ভূমি ও গৃহহীনদের জন্য। এ নিয়ে ৯ জুন ‘শীত, বর্ষায় আগের মতো কষ্ট হয় না’ শিরোনামে প্রথম আলোতে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সে প্রতিবেদনে থাকা একটি বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহিনা শবনম।

প্রতিবেদনে ইউএনওর বক্তব্যের অংশে লেখা হয়েছিল, উপজেলায় মোট খাসজমির পরিমাণ ৯০৪ একর। এর মধ্যে ৮৭৫ একর ভূমিহীনদের মধ্যে বন্দোবস্ত দেওয়া আছে। বাকি ২৯ একর জমি নিচু এলাকায়। ফলে এসব জমিতে ঘর করা যায় না। কেউ ২ শতাংশ জমি সরকারের নামে লিখে দিলে সেখানে প্রকল্পের ঘর নির্মাণ হচ্ছে।

এ নিয়ে ইউএনওর ব্যাখ্যা হলো, ‘মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ডোমার উপজেলায় দ্বিতীয় পর্যায়ের প্রথম কিস্তিতে ২০০টি ঘর বরাদ্দ হয়। কোনো ব্যক্তি যদি সরকার (রাজস্ব অফিসার) বরাবর জমি সমর্পণ করেন, তাহলে সেই জমি রাষ্ট্রীয় অধিগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইন, ১৯৫০-এর ৯২ ধারা অনুযায়ী ১ নম্বর খাস খতিয়ানে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার “ক” শ্রেণির আশ্রয়হীন লোকদের ঘর করে দেওয়ার উদ্দেশে ৬ একর ভূমি বিভিন্ন ব্যক্তি সমর্পণ করেন এবং খাস খতিয়ানে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। সমর্পণ করা এ সমস্ত জমি খাস খতিয়ানে অন্তর্ভুক্ত করে “ক” শ্রেণির, অর্থাৎ ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে ঘর নির্মাণ করে কবুলিয়ত করে দেওয়া হচ্ছে।’

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, বরাদ্দ করা ঘরের মধ্যে ১০০টি ২০ জুন হস্তান্তর করা হবে। ইউএনও তাঁর ব্যাখ্যায় বলেছেন, ১০০টি নয়, ঘর হস্তান্তর করা হবে ২০০টি।

admin

Read Previous

এবার হজের জন্য টিকার সঙ্গে বয়সের সীমাও থাকছে

Read Next

ফ্যাশন উদ্যোক্তাদের নতুন প্ল্যাটফর্ম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *