শুক্রবার ১৫ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে রুয়েট বঙ্গবন্ধু কর্মকর্তা পরিষদের উপহার সামগ্রী বিতরণ রাবির ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় অনুসরণীয় নির্দেশনাবলী রাবির সাবেক ভিসির বিরুদ্ধে দুদককে তদন্তের নির্দেশনা ছয় সপ্তাহ স্থগিত ২১০টি অনিয়মিত পত্রিকা বাতিলের তালিকা করা হয়েছে: তথ্যমন্ত্রী রাসিকের সিমলা মার্কেট, বৈশাখী বাজার ও স্বপ্নচূড়া প্লাজার শেয়ার হস্তান্তর রামেক হাসপাতালের রক্ত পরীক্ষার টাকা জমার কাউন্টারে রোগি ও স্বজনদের ভোগান্তি চরমে রাজশাহীতে মাদক অপরাধ দমনে করণীয় নির্ধারণ সভা গরুর দাম বহুত বেশি ভাইয়া খবর যায় হোক এখানে ছবি আপলোড হবে বুঝছেন মিয়া ভাই মুশফিকের পর সাকিবকে ছাড়িয়ে যাওয়ার অপেক্ষায় পরীমনি

ফজলু ওস্তাদের ছাদ–হকি

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে থেকে সরু রাস্তাটা চলে গেছে সোজা। একটু সামনে এগোলেই বেগমবাজার গলি। এই গলির প্রতিটি বাড়ির নিচের অংশই গোলাপি রঙে রাঙানো।

গলির মাথায় ৮ নম্বর নাবালক মিয়া লেনের বাড়িতে পা দিলেই খেলার একটা আবহ টের পাওয়া যায়। জরাজীর্ণ দোতলা বাড়িটির নিচতলার দেয়ালে টাঙানো হকির কত না স্মারক! বাংলাদেশের হকির তৃণমূলের অতিপরিচিত কোচ ফজলুল ইসলামের এই বাড়ির কোথাও সাজানো আছে হকির পুরোনো কোনো স্মারক, কোথাও ঝুলছে ফ্রেমে বাঁধানো সনদ, কোথাও-বা পড়ে আছে হকিস্টিক-বল-জুতা। আর একবার বাড়ির ছাদে উঠে যেতে পারলে তো বিস্ময়ের শেষ থাকবে না।

না, নাবালক মিয়া লেনের এই বাড়ির ছাদে সবুজে ঘেরা কোনো ছাদবাগান নেই। হালে ছাদ মানেই যদিও ছাদবাগান, তবে ফজলুল ইসলামের নীলচে রং করা ছাদটি মন কাড়ে ছাদ-হকির জন্য। হ্যাঁ, ছাদে ছোটখাটো একটা ‘হকি মাঠ’ই বানিয়ে ফেলেছেন তিনি! হকির প্রতি একজন মানুষের ভালোবাসা কতটা গভীর হলে এটা সম্ভব!

হকি খেলাটা পুরান ঢাকার ঐতিহ্যেরই অংশ। ‘ফজলু ওস্তাদ’ নামে পরিচিত হকি কোচ ফজলুল ইসলামের কোচিং কার্যক্রম চলত মূলত বাংলাদেশের হকির সূতিকাগার আরমানিটোলা স্কুল মাঠে। এলাকার ছেলেদের সেখানেই অনুশীলন করাতেন তিনি। করোনাকালে মাঠ ছেড়ে কিশোর-তরুণেরা যখন ঘরে ঢুকে গেল, ফজলু ওস্তাদ ভাবলেন, বিকল্প কিছু করা দরকার। সে চিন্তা থেকেই নিজের বাড়ির ছাদে হকি অনুশীলনের ব্যবস্থা। এলাকার ছোট ছোট ছেলেকে সেখানে যত্নের সঙ্গে অনুশীলন করান ফজলু ওস্তাদ। করোনার মধ্যেও চালু রেখেছেন ভবিষ্যতের হকি খেলোয়াড় তৈরির কাজ।

বাড়ির ছাদেই চলছে বাচ্চাদের অনুশীলন।
বাড়ির ছাদেই চলছে বাচ্চাদের অনুশীলন।

গত মঙ্গলবার বিকেলে ছাত্রদের হকির কলাকৌশল শেখানোর এক ফাঁকে ছাদের হকি ‘মাঠে’ দাঁড়িয়ে ফজলু এই প্রতিবেদককে বলছিলেন, ‘প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে মাঠে যাওয়া মানুষ আমি। ছেলেদের নিয়ে অনুশীলনে নেমে পড়ি। কিন্তু করোনার শুরুতে বাসায় বসে থাকতে থাকতে আর সময় কাটছিল না, ছেলেদের অনুশীলনও বন্ধ হয়ে গেল। সব মিলিয়ে রীতিমতো দমবন্ধ লাগছিল আমার। হঠাৎ মাথায় এল, আমি তো বাসার ছাদেই কিছু করতে পারি!’

সেই ভাবনা থেকেই বাড়ির ছাদ পরিষ্কার করে সেখানে হকি মাঠের আবহ তৈরি করেছেন ফজলু ওস্তাদ। প্রথমে বিকেলবেলায় পরিবারের ছেলেমেয়েদের নিয়ে অনুশীলন শুরু করেন। এরপর এলাকার ছোট ছোট ছেলেকে নিয়ে এসে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নামিয়ে দেন হকির অনুশীলনে। ফজলু ওস্তাদের হকির পাঠশালা দেখে আস্তে আস্তে আগ্রহ বাড়তে থাকে অন্যদেরও।https://www.youtube.com/embed/W9xYDREHopA?autoplay=0&enablejsapi=1&origin=https%3A%2F%2Fwww.prothomalo.com&widgetid=1

হকি মাঠের আবহ আনতে ২৪ ফুট লম্বা ও ১৪ ফুট চওড়া ছাদের মেঝেটাকে ফজলু ওস্তাদ নীল রঙে রাঙিয়ে নিয়েছেন। দেয়ালের গায়ে রং দিয়ে এঁকে নিয়েছেন গোলবার। বাচ্চাদের যেন মনে হয় তারা হকি মাঠেই অনুশীলন করছে। এসব দেখাতে দেখাতে ফজলু বলছিলেন, ‘গোলপোস্টটা এমনভাবে আঁকলাম যাতে বাচ্চারা মনে করে এটা স্টেডিয়ামের সত্যিকারের পোস্ট। এখানে অনুশীলনের ব্যবস্থা করতে পারায় খুব ভালো লাগে আমার। বাচ্চাদের তো উন্নতি হচ্ছে। এখানে খেলেও ওরা একদিন জাতীয় দলে খেলবে, এটাই আমার স্বপ্ন।’

ফজলু ওস্তাদের ছাদ-হকির খুদে খেলোয়াড়দের মধ্যে মেয়েও আছে একজন। সব মিলিয়ে সাত-আটজনের দলটা প্রতিদিনই অনুশীলন করে। আর কিছু না হোক, করোনার মধ্যে ঘরে বসে থাকার চেয়ে ছাদে স্টিক-বল নিয়ে পড়ে থাকাটা তো ভালো! বাচ্চাদের কাছেও এটাই অনেক আনন্দের।

হকির নিবেদিত প্রাণ ফজলুল ইসলাম
হকির নিবেদিত প্রাণ ফজলুল ইসলাম

এই বয়সে ওদের স্টিক ওয়ার্কও মন কাড়বে যে কারও। সাত বছরের ওয়াসিম আকবর স্টিকের কারুকাজ দেখাতে দেখাতে বলল তার স্বপ্নের কথা, ‘আমি কামাল ভাই আর জিমি মামার মতো হতে চাই।’ রফিকুল ইসলাম কামাল ও রাসেল মাহমুদ জিমি পুরান ঢাকা থেকেই উঠে আসা বাংলাদেশের হকির দুই প্রজন্মের দুই উজ্জ্বল মুখ। আরও অগুনতি খেলোয়াড়ের মতো এই দুই তারকা খেলোয়াড়ও কোচ ফজলু ওস্তাদের হাতে গড়া। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে তিনি খেলোয়াড় তৈরি করে চলেছেন ‘কী পেলাম’ সে হিসাব না করেই।

কে জানে, ফজলু ওস্তাদের নিরন্তর প্রচেষ্টায় একদিন হয়তো তাঁর ছাদ-হকি থেকেই উঠে আসবে আগামী দিনের কোনো তারকা!

এই বিভাগের আরও খবর

দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে রুয়েট বঙ্গবন্ধু কর্মকর্তা পরিষদের উপহার সামগ্রী বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ মঙ্গলবার ফযলভঠ ৫টায় রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় (রুয়েট) শাখা বঙ্গবন্ধু কর্মকর্তা পরিষদের উদ্যোগে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বী শতাধিক দরিদ্র

রাবির ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় অনুসরণীয় নির্দেশনাবলী

১. ট্রাফিক ব্যবস্থা সংক্রান্ত ক) সকল প্রকার যানবাহন বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা ও বিনোদপুর গেট দিয়ে প্রবেশ করবে এবং মেইন গেট দিয়ে বেরিয়ে যাবে। শারীরিক প্রতিবন্ধীরা যানবাহন

রাবির সাবেক ভিসির বিরুদ্ধে দুদককে তদন্তের নির্দেশনা ছয় সপ্তাহ স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষক নিয়োগে অনিয়ম ও ক্ষমতার অপব্যবহার হয়েছে কিনা? তদন্ত করে ৬০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য সুপ্রীমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ, দুর্নীতি

২১০টি অনিয়মিত পত্রিকা বাতিলের তালিকা করা হয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

রাজশাহী ডেস্ক: অনিয়মিত পত্রিকা বাতিল করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘২১০টি পত্রিকা, যেগুলো আসলে ছাপা হয় না। মাঝে মাঝে

রাসিকের সিমলা মার্কেট, বৈশাখী বাজার ও স্বপ্নচূড়া প্লাজার শেয়ার হস্তান্তর

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের (রাসিক) পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপের (পিপিপি) আওতায় নির্মিত সিমলা মার্কেটের সম্পূর্ণ এবং বৈশাখী বাজার ও স্বপ্নচূড়া প্লাজার শেয়ার আংশিক হস্তান্তর করা

রামেক হাসপাতালের রক্ত পরীক্ষার টাকা জমার কাউন্টারে রোগি ও স্বজনদের ভোগান্তি চরমে

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের রক্ত পরীক্ষার টাকা জমা দেয়ার কাউন্টারে প্রতিদিন চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে রোগি ও স্বজনদের। রক্ত পরীক্ষার জন্য একটিমাত্র