শিরোনাম:
রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে আরও ১৮ জনের মৃত্যু এবার রাবির নতুন উপ-উপাচার্যকে ঘিরে বিতর্ক রাবির নতুন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম টিপু রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বিতর্কিত ভূমিকার কাউকে ভিসি, প্রো-ভিসি নিয়োগ কেউই মেনে নেবে না’ ইতিহাসবিদ এ বি এম হোসেন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবস্তম্ভ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে উপাচার্যের নির্বাহী আদেশ অমান্যসহ তথ্য গোপনের অভিযোগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী অফিসারদের উপস্থিতি চোখে পড়ে ‘হ্যাটস অফ টু ইউ স্যার’
১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভর্তুকি পাবেন শুধু পুরোনো কর্মীরা

করোনার সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সৌদি আরবে গিয়ে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন করতে হচ্ছে প্রবাসী কর্মীদের। এতে ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা বাড়তি খরচ হচ্ছে। বাড়তি খরচের চাপ কমাতে ২৫ হাজার টাকা করে ভর্তুকি দেবে সরকার। তবে এটি নতুন কর্মীরা পাবেন না। যাঁরা দেশে ছুটি কাটিয়ে কর্মস্থলে ফিরছেন, শুধু তাঁদের আপাতত ভর্তুকি দেওয়া হবে।

প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, সৌদিগামী অভিবাসী কর্মীদের জন্য কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে আন্তমন্ত্রণালয় বৈঠকে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড থেকে প্রত্যেক কর্মীকে ২৫ হাজার টাকা ভর্তুকির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিএমইটির স্মার্ট কার্ড, হোটেল বুকিং রসিদ ও টিকিট উপস্থাপন করলে কল্যাণ বোর্ড থেকে টাকা পাবেন সৌদি আরবগামী পুরোনো কর্মীরা।

সৌদি আরবে কর্মী পাঠানোর সঙ্গে জড়িত ব্যবসায়ীরা বলছেন, নতুন কর্মীদের অভিবাসন ব্যয় অনেক বেড়ে গেছে। তাঁদেরও ভর্তুকির আওতায় আনা দরকার। এটি না হলে দ্রুত তাঁদের করোনার দুই ডোজ টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা উচিত। রিক্রুটিং এজেন্সি ঐক্য পরিষদের সভাপতি টিপু সুলতান প্রথম আলোকে বলেন, নতুন কর্মীদের বাড়তি খরচের বিষয়টি বিবেচনা করা উচিত।

তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের দুজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বলেন, নতুনদের ভিসার মেয়াদ থাকায় তাঁদের বিবেচনায় নেওয়া হয়নি। আপাতত শুধু পুরোনো কর্মীরা পাবেন। ২০ মে থেকে এর মধ্যে যাঁরা সৌদি চলে গেছেন, তাঁরাও ভর্তুকির টাকা পাবেন।

দেশে করোনা পরিস্থিতি বাড়তে থাকায় যাত্রীদের জন্য গত ১৭ মে কিছু বিধিনিষেধ জারি করে সৌদি সরকার। এটি ২০ মে কার্যকর হয়। এর ফলে কোয়ারেন্টিন প্যাকেজের জন্য (হোটেল ভাড়া ও করোনা পরীক্ষার ফি) বাড়তি খরচ করতে হয় প্রবাসীদের। গত ২৫ মে ‘বাড়তি খরচের চাপে সৌদিপ্রবাসীরা’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে প্রথম আলো। এরপর ২৭ মে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন সাংবাদিকদের বলেন, সৌদিপ্রবাসীদের ভর্তুকি দেওয়া হবে।

গত ২০ থেকে ২৮ মে পর্যন্ত সৌদিতে ফ্লাইট বন্ধ রাখে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। উড়োজাহাজ থেকে কোয়ারেন্টিন বুকিং নিয়েও নানা ভোগান্তি তৈরি হয়। সংকট সমাধানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয় যৌথ বৈঠক করে কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেয়। এতে ভর্তুকি ছাড়াও বাংলাদেশি কর্মীদের কোয়ারেন্টিনসহ এ-সংক্রান্ত খরচ নিয়োগকর্তার কাছ থেকে আদায়ের জন্য কূটনৈতিক তৎপরতা অব্যাহত থাকবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

যাঁরা নতুন, তাঁরাও কল্যাণ বোর্ডের ফি জমা দেবেন। তাই ভর্তুকি পাওয়ার পূর্ণ অধিকার তাঁদের আছে।

শাকিরুল ইসলাম, চেয়ারম্যান, ওকাপ

এ বিষয়ে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন প্রথম আলোকে বলেন, ভর্তুকির টাকা প্রবাসী কর্মী বা তাঁর মনোনীত ব্যক্তির ব্যাংক হিসাবে জমা হবে। সহজে টাকা প্রদানের পদ্ধতি নির্ধারণ করা হচ্ছে। খুব শিগগির এটি চূড়ান্ত করা হবে।

প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয় বলেছে, উড়োজাহাজ সংস্থা ছাড়াও সৌদি এয়ারলাইনসের (সৌদিয়া) তালিকাভুক্ত ৩০০ ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমে কোয়ারেন্টিন প্যাকেজ বুকিং দিতে পারবেন প্রবাসীরা। উড়োজাহাজ সংস্থা ও ট্রাভেল এজেন্সির কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে গত বৃহস্পতিবার এটি চালু করা হয়েছে। টিকিট থাকার পরও যাঁরা ২০ মে থেকে যেতে পারেননি, তাঁরা কোনো বাড়তি ফি ছাড়া পুনরায় টিকিট নবায়ন করতে পারবেন। সৌদিয়া কার্যালয় বা ট্রাভেল এজেন্সি থেকে তাঁরা এটি করতে পারবেন। এর ফলে ঢাকায় না এসে নিজের কাছাকাছি এলাকার অনুমোদিত ট্রাভেল এজেন্সি থেকেই বুকিংয়ের সুযোগ পাবেন কর্মীরা। হোটেল বুকিংয়ের জন্য সর্বোচ্চ ২ হাজার এবং টিকিট নবায়নের জন্য সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ট্রাভেল এজেন্সির। এ ছাড়া প্রবাসী কর্মীদের যেকোনো সমস্যার দ্রুত সমাধান দিতে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের একটি ‘কুইক রেসপন্স টিম’ কাজ করছে।

সৌদি কর্তৃপক্ষের বিধিনিষেধে বলা হয়, সে দেশে যাওয়ার আগে করোনার দুই ডোজ টিকা নেওয়ার পর ১৪ দিন পার হলে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে না। তা না হলে সাত দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এ ছাড়া হোটেলে প্রবেশের আগে এবং কোয়ারেন্টিন শেষে বের হওয়ার পর করোনা পরীক্ষা করাতে হবে।

এ বিষয়ে তৃণমূল অভিবাসীদের সংগঠন অভিবাসী কর্মী উন্নয়ন প্রোগ্রামের (ওকাপ) চেয়ারম্যান শাকিরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, এতে নতুন ও পুরোনোদের মধ্যে বৈষম্য তৈরি করা হচ্ছে। যাঁরা নতুন, তাঁরাও কল্যাণ বোর্ডের ফি জমা দেবেন। তাই ভর্তুকি পাওয়ার পূর্ণ অধিকার তাঁদের আছে। এ ছাড়া ভিসা পাওয়ার পর দ্রুত টিকা নিশ্চিত করা দরকার।

admin

Read Previous

কতটা এগোল ‘রাজরাজেশ্বরী’র শহর

Read Next

দুর্গতিতে ‘রাগ কমানোর’ পার্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *