শিরোনাম:
এবার রাবির নতুন উপ-উপাচার্যকে ঘিরে বিতর্ক রাবির নতুন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম টিপু রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বিতর্কিত ভূমিকার কাউকে ভিসি, প্রো-ভিসি নিয়োগ কেউই মেনে নেবে না’ ইতিহাসবিদ এ বি এম হোসেন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবস্তম্ভ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে উপাচার্যের নির্বাহী আদেশ অমান্যসহ তথ্য গোপনের অভিযোগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী অফিসারদের উপস্থিতি চোখে পড়ে ‘হ্যাটস অফ টু ইউ স্যার’ ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, বঙ্গবন্ধুর তনয়া, দেশরত্ন শেখ হাসিনা আপা, আপনি আস্থা ও ভরসার শেষ ঠিকানা’
১১ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৬শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

৭ জুন থেকে ১২ বছরের বেশি বয়সীদের টিকা শুরু: ম্যার্কেল

জার্মানিতে আগামী ৭ জুন থেকে ১২ বছরের বেশি বয়সী শিশুদের করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়া শুরু হবে। দেশটির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার এ কথা জানিয়েছেন। খবর এএফপির।

ম্যার্কেল এও বলেছেন, টিকাদান শিশুদের জন্য বাধ্যতামূলক হবে না। শিশুরা স্কুলে যাচ্ছে, না ছুটিতে আছে; টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে সে বিষয়টিও প্রভাব ফেলবে না বলে জানান তিনি।

দ্য ইউরোপীয় মেডিসিনস এজেন্সি স্থানীয় সময় আজ শুক্রবার ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সী শিশুদের জন্য ফাইজার/বায়োএনটেকের টিকার অনুমোদন দেবে বলে আশা করছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নে ১৬ বছরের বেশি বয়সীদের প্রয়োগের জন্য এই টিকা এর মধ্যেই অনুমোদন পেয়েছে।

জার্মানির আঞ্চলিক নেতাদের সঙ্গে আলোচনার পরে ম্যার্কেল বলেন, আগামী ৭ জুন থেকে ১২ বছরের বেশি বয়সী শিশুরা টিকার জন্য অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে পারবে। যারা টিকা নিতে ইচ্ছুক, তারা আগস্টের মধ্যে প্রথম দুই ডোজ টিকা নিতে পারবে। স্কুলের নতুন বছর শুরুর আগেই শিশুদের এই টিকা দেওয়া সম্ভব হবে।

সাংবাদিকদের ম্যার্কেল আরও বলেন, ‘অভিভাবকদের বলতে চাই, শিশুদের টিকা দেওয়া বাধ্যতামূলক নয়। টিকা দেওয়ার পরই শিশুরা স্কুলে যেতে পারবে, বিষয়টি এমন নয়। শুধু টিকা দেওয়া হয়েছে এমন শিশুদের নিয়ে অবকাশকালীন ভ্রমণে যাওয়া যাবে, এ রকম কোনো নিয়মও নেই।’

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিরুদ্ধে হার্ড ইমিউনিটি তৈরির পথে এক ধাপ এগোতেই শিশুদের টিকা দেওয়া হবে।

কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রে ১২ বছরের বেশি বয়সীদের এর মধ্যেই টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শিশুদের গুরুতর পর্যায়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমই হয়। টিকার সরবরাহ এখনো পর্যাপ্ত নয়।

জার্মানিতে ৪০ শতাংশের বেশি প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন। ১৫ শতাংশ মানুষ টিকার দুটি ডোজই পেয়েছেন।

করোনা পরীক্ষা ও কঠোর বিধিনিষেধের কারণে জার্মানিতে সংক্রমণ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে। এটিকে বড় ধরনের সফলতা মনে করছেন ম্যার্কেল। তবে তিনি সামাজিক দূরত্ব, মাস্ক পরার মতো নিয়ম মেনে চলতে আহ্বান জানিয়েছেন।

admin

Read Previous

বিআরটিএর সব কাজ এক প্রতিষ্ঠানে

Read Next

উপকূলে ঝড়ের চেয়ে জোয়ারে ক্ষতি বেড়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *