শিরোনাম:
এবার রাবির নতুন উপ-উপাচার্যকে ঘিরে বিতর্ক রাবির নতুন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম টিপু রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বিতর্কিত ভূমিকার কাউকে ভিসি, প্রো-ভিসি নিয়োগ কেউই মেনে নেবে না’ ইতিহাসবিদ এ বি এম হোসেন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবস্তম্ভ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে উপাচার্যের নির্বাহী আদেশ অমান্যসহ তথ্য গোপনের অভিযোগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী অফিসারদের উপস্থিতি চোখে পড়ে ‘হ্যাটস অফ টু ইউ স্যার’ ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, বঙ্গবন্ধুর তনয়া, দেশরত্ন শেখ হাসিনা আপা, আপনি আস্থা ও ভরসার শেষ ঠিকানা’
৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পাবলিক পরীক্ষার বিষয়ে ভাবছে সরকার : শিক্ষামন্ত্রী

রাজশাহী ডেস্ক:
ঢাকা: করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার আয়োজন নিয়েও রয়েছে আশঙ্কা। তবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে সঠিক সময়ে পরীক্ষা নেওয়া না গেলে এ বছর বিকল্প মূল্যায়ন পদ্ধতি বের করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

আজ রোববার (১৩ জুন) জাতীয় প্রেসক্লাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক সভা শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের এ কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী ।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, ‘২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে নেওয়ার জন্য সবকিছু চূড়ান্ত রয়েছে। এখন পরিস্থিতি পাল্টে গেছে। যদি সেটি না করা যায় তাহলে এর বিকল্প চিন্তা করা হবে। এই দুই পরীক্ষার বিকল্প আমাদের খুঁজতে হবে।’
বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা যেন তাদের স্বাভাবিক পড়াশোনা চালিয়ে যায়। মহামারির কারণে সারাবিশ্বেই স্কুল কলেজ বন্ধ রয়েছে। এটা বড় ক্ষতি। আমরা সেটি পুষিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি।’ তিনি বলেন, ‘এই সময়ে শিক্ষার্থীরা যেন কোনো ভুলপথে পা বাড়ায়। বাড়িতে নিজেদের সুস্থ রাখার জন্য শারীরিক এবং মানসিকভাবে ফিট থাকতে হবে। শিক্ষার্থীদের ভয়ের কোনো কারণ নেই। আমরা তাদের বিষয়টি যত্নের সঙ্গে দেখিছি। পরীক্ষা এক বছর না দিলে জীবনে এমন কোনো বিরাট ক্ষতি হয়ে যাবে না।’

উল্লেখ্য, দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঝুঁকির কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়। ২০২০ সালের মার্চে এসএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হলেও এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় বসতে পারেননি। তাদের ফল হয় বিকল্প মূল্যায়নে।

admin

Read Previous

লকডাউনে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় রাজশাহীতে ৫৭ জনকে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা

Read Next

ফের বিয়ের পিড়িতে শ্রাবন্তী!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *