শিরোনাম:
এবার রাবির নতুন উপ-উপাচার্যকে ঘিরে বিতর্ক রাবির নতুন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম টিপু রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বিতর্কিত ভূমিকার কাউকে ভিসি, প্রো-ভিসি নিয়োগ কেউই মেনে নেবে না’ ইতিহাসবিদ এ বি এম হোসেন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবস্তম্ভ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে উপাচার্যের নির্বাহী আদেশ অমান্যসহ তথ্য গোপনের অভিযোগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী অফিসারদের উপস্থিতি চোখে পড়ে ‘হ্যাটস অফ টু ইউ স্যার’ ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, বঙ্গবন্ধুর তনয়া, দেশরত্ন শেখ হাসিনা আপা, আপনি আস্থা ও ভরসার শেষ ঠিকানা’
১১ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৬শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

‘অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট বাতিল করা দরকার’

নিজস্ব প্রতিবেদক :

‘অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট’ তথ্য অধিকার আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট যে অধিকার না দিয়েছে, অথ্য অধিকার আইন তা দিয়েছে। তাই অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট এখন বাতিল করা প্রয়োজন।’ প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ (পিআইবি) আয়োজিত এক ভার্চুয়াল কর্মশালায় বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডে এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, ‘অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টটি এখন প্রায় অকার্যকর। দীর্ঘ ৬০ বছর পর প্রথম আলোর সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে এই আইনে মামলা হয়েছে। সেটি আরও পর্যালোচনার দরকার ছিলো।’

করোনা পরিস্থিতির কারণে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ভার্চুয়াল মাধ্যমে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। তথ্য অধিকার বিষয়ক এই কর্মশালায় রাজশাহী বিভাগের রাজশাহী, নাটোর, নওগাঁ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও পাবনা জেলার ৩৫ জন সাংবাদিক অংশগ্রহণ করেন। রাবির সাংবাদিকতা বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডে রিসোর্স পার্সন হিসেবে কর্মশালায় অংশ নেন।

কর্মশালায় তিনি তথ্য অধিকার আইনের নানা দিক নিয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, তথ্য অধিকার আইনে উল্লেখ আছে, এই আইনের সঙ্গে আগের কোন আইনের কোন ধারা যদি সাংঘর্ষিক হয়, তাহলে তথ্য অধিকার আইনেরই প্রয়োগ হবে। এক্ষেত্রে দেখা যায় যে, তথ্য অধিকার আইনের সঙ্গে ‘অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট’ সাংঘর্ষিক হয়ে যাচ্ছে। তাই ৮০ বছরের পুরনো আইনটি আগেই বাতিল করা উচিত ছিল।

কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন পিআইবির মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ। তিনি তথ্য অধিকার আইন এবং সাংবাদিকতার নানা দিক তুলে ধরে বক্তব্য দেন। অংশগ্রহণকারী সাংবাদিকরাও তথ্য অধিকার আইনের নানা বিষয়ে জানতে চান। পিআইবি মহাপরিচালক ও ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

admin

Read Previous

রাবির সেই ১৩৮ জনের নিয়োগ বাতিলে তৎপর রুটিন উপাচার্য ড. আনন্দ কুমার সাহা!

Read Next

রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে আরও ১২ জনের মৃত্যু

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *