শিরোনাম:
রামেক হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে আরও ১৮ জনের মৃত্যু এবার রাবির নতুন উপ-উপাচার্যকে ঘিরে বিতর্ক রাবির নতুন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম টিপু রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বিতর্কিত ভূমিকার কাউকে ভিসি, প্রো-ভিসি নিয়োগ কেউই মেনে নেবে না’ ইতিহাসবিদ এ বি এম হোসেন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবস্তম্ভ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে উপাচার্যের নির্বাহী আদেশ অমান্যসহ তথ্য গোপনের অভিযোগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী অফিসারদের উপস্থিতি চোখে পড়ে ‘হ্যাটস অফ টু ইউ স্যার’
১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

গণপরিবহনে অবাধ চলাফেরায় করোনা সংক্রমণ বাড়ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

রাজশাহী ডেস্ক:

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, দেশে ব্যবসা বাণিজ্য ও গণপরিবহনে অবাধ চলাফেরা করায় দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার বাড়ছে। ব্যবসা বাণিজ্যের জন্য মানুষের যাতায়াত বাড়ছে। আমের সিজনে আম কেনাকাটা ও ধান কাটার জন্য লোক যাওয়া আসা করেছে। এ কারণে করোনা সংক্রমণ কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে।

দেশের উত্তরবঙ্গে বিশেষ করে রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রংপুর, খুলনা, সাতক্ষীরা ও নওগাঁ জেলায় করোনা সংক্রমণ হার বেশি। কোন কোন জেলায় করোনা ৩০-৪০ শতাংশ হয়ে গেছে। এদিকে নোয়াখালিতেও করোনা বাড়তি এবং রাজবাড়ী পর্যন্তও করোনা সংক্রমণ হার বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

আজ শুক্রবার (১৮ জুন) দুপুরে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার গড়পাড়া নিজ বাসবভনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরোও বলেন, সংক্রমণের হার যদি আমাদের রোধ করতে হয়। তাহলে কঠোর ভাবে আমাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গণ পরিবহনে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে। কারণ গণপরিবহনে গাদাগাদি করে যাত্রী যাতায়াত করে। এসব কারণে সংক্রমণের হার বাড়ছে।

অতএব গণপরিবহনে সরকারের নির্দেশ মেনে যাতায়াত করতে হবে এবং অর্ধেক সিট খালি রাখতে হবে। আমরা দেখছি গণপরিবহনে এসব মানা হচ্ছে না। তিনি আরও বলেন, উত্তর বঙ্গের হাসপাতালগুলোতে রোগীতে ভরে গেছে। রোগীদের সামাল দেয়া কঠিন হচ্ছে। আমরা চাইনা ঢাকা ও দেশের অন্যান্য জেলাগুলোতে এই সমস্যা দেখা দিক।

মন্ত্রী বলেন, দেশে যখন করোনা মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে ছিল, তখন সারাদেশে ১৫০০ মতো রোগী ছিল। সংক্রমণ বাড়ায় বর্তমানে সারাদেশে ৪ হাজারের মতো রোগী আছে এবং প্রত্যেক দিন প্রায় ৪ হাজারের কাছে রোগী আক্রান্ত হচ্ছেন। বর্তমান হারে যদি রোগী বাড়ে, তাহলে কোন এক সময়ে হাসপাতালে জায়গা দেয়া কঠিন হয়ে যাবে।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইসরাফিল হোসেনের সভাপতিত্বে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আফসার উদ্দিন সরকার, সাটুরিয়া উপজেলার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আফাজ উদ্দিন, বালিয়াটি ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমীনসহ অন্যান্যরা মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন।

admin

Read Previous

রিসোর্টে অসামাজিক কার্যকলাপ : মাদকসহ ২৪ নারী-পুরুষ আটক

Read Next

বিএনপির রাজনীতি করোনাভাইরাসের চেয়েও ভয়ঙ্কর : ওবায়দুল কাদের

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *