শিরোনাম:
এবার রাবির নতুন উপ-উপাচার্যকে ঘিরে বিতর্ক রাবির নতুন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম টিপু রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বিতর্কিত ভূমিকার কাউকে ভিসি, প্রো-ভিসি নিয়োগ কেউই মেনে নেবে না’ ইতিহাসবিদ এ বি এম হোসেন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবস্তম্ভ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে উপাচার্যের নির্বাহী আদেশ অমান্যসহ তথ্য গোপনের অভিযোগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী অফিসারদের উপস্থিতি চোখে পড়ে ‘হ্যাটস অফ টু ইউ স্যার’ ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, বঙ্গবন্ধুর তনয়া, দেশরত্ন শেখ হাসিনা আপা, আপনি আস্থা ও ভরসার শেষ ঠিকানা’
১০ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে

সিপিপির ওয়েবিনারে শাহরিয়ার কবির

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সেন্টার ফর পিপলস এন্ড পলিসির (সিপিপি) ’৭২-এ আওয়ামী লীগ : শতবর্ষের পথে করণীয়” শীর্ষক ওয়েবিনারের আয়োজন করে। সংগঠনের সভাপতি হাসিবুর রহমানের সভাপতিত্বে এ আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি লেখক-সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির, প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী জেলার সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ। আলোচনায় নেন ছাত্রলীগ রাজশাহী মহানগরের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের হাসান রুবেল, রাজশাহী মহানগরের সাবেক সভাপতি রকি কুমার ঘোষ, রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা যেমন বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে তেমনি বিশ্ব শান্তি নিশ্চিত হবে উল্লেখ করে প্রধান অতিথি শাহারিয়ার কবির বলেন, ‘অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিয়ে আওয়ামী লীগের জন্ম। আর সেই থেকেই বাঙালির অগ্রযাত্রা শুরু। স্বাধীনতার আকাঙ্খায় বাঙালি প্রস্তুত হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে। আওয়ামী লীগকে তার ইতিহাস লিখতে হবে। মাত্র নয় মাসের সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ সৃষ্টির ঐতিহ্য ও অর্জন আওয়ামী লীগের। শ্রেষ্ঠ সংবিধান প্রণয়নের অনন্য অর্জন আওয়ামী লীগের। এই রকম হাজারও অর্জন আওয়ামী লীগের। এসব অর্জনের ইতিহাস লিপিবদ্ধ থাকতে হবে। যুগের সাথে তাল মেলাতে কর্মীদের প্রশিক্ষণের আওতায় আনা জরুরী হয়ে পড়েছে। বঙ্গবন্ধুকে যেমন আদর্শিকভাবে চর্চা করতে হবে, তেমনি প্রতিষ্ঠাও করতে হবে আদর্শিক ভাবেই। বিশ্বকে উগ্রবাদ থেকে মুক্তি দিয়ে শান্তির আবহ তৈরি করতে বঙ্গবন্ধু আদর্শ প্রতিষ্ঠাই উত্তম পথ।

আসাদুজ্জামান বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ যেমন পূর্ণতা পেয়েছে, তেমনি দেশ ক্রমাগত উন্নতির পথে এগিয়ে যাচ্ছে। শত বাধা অতিক্রম করে, শত শহিদের রক্তকে ধারণ করে আওয়ামী লীগের হাতেই দেশের সকল অর্জন। আওয়ামী লীগই দেশকে স্বাধীন করেছে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে সর্তক সিদ্ধান্ত নেবার আহ্বান জানান তিনি।  তিনি আরো বলেন, শত্রুরা আজ আমাদের মাঝেই বিচরণ করছে। কর্মীদের আরো তীক্ষ্ন শাণিত হতে আদর্শিক ভাবে কাজ করতে হবে।

জুবায়ের হাসান রুবন বলেন, দলের সাংগঠনিক সক্ষমতা বাড়াতে হবে। দূযোর্গের সময়ের নেতাদের দিয়ে কর্মশালা করতে হবে এবং তার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কাজ করতে হবে।

রকি কুমার ঘোষ বলেন, অনুপ্রবেশকারীদের সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে। তারা বেপরোয়ার হচ্ছে, দলকে ক্ষতিগ্রস্থ করছ।

হাবিব বলেন, জনকল্যানই আওয়ামী লীগের লক্ষ্য। কর্মীদের জনকল্যাণে আরো বেশি সম্পৃক্ত হতে হবে।

admin

Read Previous

‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বিতর্কিত ভূমিকার কাউকে ভিসি, প্রো-ভিসি নিয়োগ কেউই মেনে নেবে না’

Read Next

রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *