শিরোনাম:
এবার রাবির নতুন উপ-উপাচার্যকে ঘিরে বিতর্ক রাবির নতুন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম টিপু রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী বিতর্কিত ভূমিকার কাউকে ভিসি, প্রো-ভিসি নিয়োগ কেউই মেনে নেবে না’ ইতিহাসবিদ এ বি এম হোসেন : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবস্তম্ভ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে উপাচার্যের নির্বাহী আদেশ অমান্যসহ তথ্য গোপনের অভিযোগ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী অফিসারদের উপস্থিতি চোখে পড়ে ‘হ্যাটস অফ টু ইউ স্যার’ ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, বঙ্গবন্ধুর তনয়া, দেশরত্ন শেখ হাসিনা আপা, আপনি আস্থা ও ভরসার শেষ ঠিকানা’
১০ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত ভিসি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধন

রাবি শহিদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিফলকের সামনে মঙ্গলবার মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়

রাবি সংবাদদাতা :

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ পদে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে দায়িত্ব না দেওয়ার ও দ্রুত উপাচার্য নিয়োগের দাবিতে ক্যাম্পাসে মানববন্ধন ও সমাবেশ পালিত হয়েছে। বুধবার (১৩ জুলাই) দুপুরে ‘শহিদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিফলক’ চত্বরে ‘আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী’র ব্যানারে সাবেক শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা এই কর্মসূচি পালন করেন বলে জানা যায়।

ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সদস্য ও রাবি শাখার সাবেক সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান সুমনের সঞ্চালনায় মানববন্ধন ও সমাবেশে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক ফারদিন, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি রাবি শাখার সাবেক আহ্বায়ক মতিউর রহমান মর্তুজা, মহানগর যুবলীগের গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক এসকে আরকান বাপ্পী প্রমুখ বক্তব্য দেন। কর্মসূচিতে রাবি শাখা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও ১/১১ এর সময় কারাবরণকারী আজিম বিন কামাল উজ্জ্বল, সাবেক সহ-সভাপতি ফিরোজ মাহমুদ, দেলোয়ার হোসেন ডিলস, মহানগর যুবলীগের সদস্য নাসির হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন, ‘রাবির সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. সুলতান-উল-ইসলাম টিপু সহোদর প্রয়াত অধ্যাপক ড. সোলাইমান আলী সরকার ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর ও পাক-হানাদার বাহিনীর দোসর ছিলেন। তার নির্দেশে বিশ্ববিদ্যালয় ও আশেপাশের নিরীহ মানুষদেরকে ধরে এনে শহিদ শামসুজ্জোহা হলে পাক হানাদার বাহিনী নির্মম নির্যাতন ও হত্যা করত। তার অনেক আত্মীয়-স্বজন বিএনপি-জামাতের রাজনীতির সঙ্গে সরাসরি যুক্ত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করে ‘বিতর্কিত’ অধ্যাপককে রাবির উপ-উপাচার্য নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া নয়া উপ-উপাচার্যের বিরুদ্ধে ‘শহিদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিফলক’ নির্মাণে বঙ্গবন্ধুকে অবমানাসহ ৯০০ কেজি তামা গায়েবের অভিযোগ রয়েছে। এমন শিক্ষককে উপ-উপাচার্য নিয়োগ দেয়ায় প্রগতিশীল শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ ক্ষমতাসীন জোট সরকারের জনপ্রতিনিধিরাও বিক্ষুব্ধ। নয়া উপ-উপাচার্যকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী আখ্যা দিয়ে তার পদত্যাগ দাবি এবং তাকে উপ-উপাচার্যের চেয়ারে বসতে না দেয়ার ঘোষণা’ দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, ভূ-তত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. সুলতান-উল-ইসলামকে রাবির উপ-উপাচার্য নিয়োগের খবরে প্রগতিশীল শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন। গত সোমবার (১২ জুলাই) রাতে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পাটির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি বিবৃতি দিয়ে রাবি প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী কাউকে নিয়োগ না দিতে সরকারের প্রতি আহবান জানান। আজ মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) দুপুরে রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য মো. আবদুল হামিদের অনুমোদনক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের এক প্রজ্ঞাপনে অধ্যাপক সুলতান-উল ইসলামকে উপ-উপাচার্য নিয়োগের বিষয়টি জানানো হয়। এ খবর জানাজানি হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘শহিদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিফলকে’র মানববন্ধন ও সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

admin

Read Previous

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শনের চর্চা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিবে

Read Next

রাবির নতুন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলাম টিপু

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *