শুক্রবার ২১শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীতে আমগাছে মুকুলের সৌরভ

নিজস্ব প্রতিবেদক  দিনের বেলা রৌদ্রোজ্জ্বল। সন্ধ্যার আগেই নামছে শীত। সন্ধ্যা পেরিয়ে সকাল পর্যন্ত সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পারদ কমছে। মাঘের বাতাসে থাকছে হাড়কাপুনি ঠান্ডা। আর এই বাতাসের

ঘন কুয়াশা নেই, দুর্গাপুরে ফলন বাড়ার আশা আলুচাষির

নিজস্ব প্রতিবেদক  রাজশাহীর দুর্গাপুরে আলুচাষিরা খেত পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। এ বছর কনকনে ঠান্ডা সত্ত্বেও এখনো আলুগাছে নাবি ধসা (লেট ব্লাইট) এবং কাণ্ড পচা

বাঘায় গ্লাডিওলাস ফুল চাষে খুলে গেল ভাগ্যের চাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় আড়ানী পৌরসভার হামিদকুড়া গ্রামের উচ্চ শিক্ষিত সোহেল রানা। তিনি দীর্ঘদিন বেকার ছিলেন। বাবার বসতভিটাসহ তিন বিঘা জমি ছাড়া কোনো সম্পদ

রাজশাহীতে এক কেজি খেজুর গুড়ে মিশছে দুই কেজি চিনি

নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী দুর্গাপুরের আমগাছী বাজার। এই বাজারটি বসে সপ্তাহে দু’দিন। মূলত খেজুর গুড়ের জন্য এ হাটটটি ব্যবসায়ীদের বাছে অনেকটা পরিচিত। শীতের এই মৌসুমে আমাগী

রাজশাহীতে রবিশস্য ভরপুর বরেন্দ্রের মাঠ

নিজস্ব প্রতিবেদক  রাজশাহীর তানোর উপজেলার একেবারে প্রত্যান্তঞ্চল একটি গ্রামের নাম গৌরাঙ্গাপুর। এ গৌরাঙ্গাপুর মৌজার প্রায় ৩০০ একর পুরোটাই উঁচু-নিচু ঢেউ খেলানো বরেন্দ্রের পটভূমি। পুরো মৌজা

পুঠিয়ায় বাগানে সাথি ফল বরই

নিজস্ব প্রতিবেদক বরই চাষে খরচ বেশি হলেও বাগানে সাথি ফল হিসেবে এর কদর বেশ। নতুন কোনো ফলের বাগান করলে জমির বেশির ভাগ অংশ ফাঁকা পড়ে

আমের রাজধানী চাঁপাইয়ে আমগাছ কাটার হিড়িক

নিজস্ব প্রতিবেদক আমের নায্য মূল্য না পেয়ে একের পর এক আমগাছ কেটে ফেলছেন আমচাষিরা। বর্তমানে ধানের মতো আম চাষ নিয়েও অনীহা লক্ষ্য করা গেছে তাদের

বাগমারায় কৃষি কর্মকর্তার বিদায় ও বরণ অনুষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহীর বাগমারায় উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রাজিবুর রহমান এর বদলিজনিত বিদায় এবং কৃষি কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক এর আগমন উপলক্ষ্যে বিদায় ও বরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন

পুঠিয়ায় পেঁয়াজ চাষে ব্যস্ত কৃষক, ভালো ফলনের আশা

নিজস্ব প্রতিবেদক  রাজশাহীর পুঠিয়ায় এবারও রেকর্ড পরিমাণ জমিতে পেঁয়াজ চাষ হচ্ছে। কৃষি অফিস বলছে, চাষিরা সময়মতো খেতের পরিচর্যা করতে পারলে ও অনুকূল আবহাওয়া থাকলে এবার

পদ্মার চরে অনাবাদি জমিতে কুল চাষে বিপ্লব

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার পদ্মার চরের মধ্যে চকরাজাপুর ইউনিয়ন। রোদ আর তপ্ত বালুর কারণে বছরের পর বছর পদ্মার চরে পাঁচ হাজার ২৮৬ হেক্টর জমি অনাবাদি ছিল।